বৃক্ষরােপণের প্রয়ােজনীয়তা ব্যক্ত করে পত্রিকায় প্রকাশের জন্য পত্র লেখ

Rate this post

বৃক্ষরােপণের প্রয়ােজনীয়তা ব্যক্ত করে পত্রিকায় প্রকাশের জন্য পত্র লেখ

বৃক্ষরােপণের প্রয়ােজনীয়তা ব্যক্ত করে পত্রিকায় প্রকাশের জন্য পত্র লেখ।

তারিখ : ০৫. ০৬, ২০২২

বরাবর

সম্পাদক

দৈনিক প্রথম আলাে

১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার

ঢাকা।

বিষয় : সংযুক্ত পত্রটি প্রকাশের আবেদন।

জনাব,

বিনীত নিবেদন এই যে, আপনার বহুল প্রচারিত স্বনামখ্যাত ‘দৈনিক প্রথম আলাে পত্রিকার চিঠিপত্র কলামে নিম্নোক্ত বর্ণনাটুকু প্রকাশ করলে অত্যন্ত কৃতজ্ঞ থাকব।

বিনীত

লিজন

আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম।

বৃক্ষরোপণের প্রয়ােজনীয়তা

বৃক্ষ মানবজীবনের পরম বন্ধু। বৃক্ষ অক্সিজেন বর্জন করে এবং মানুষের শ্বাস-প্রশ্বাস বর্জনে নির্গত বিষাক্ত কার্বন ডাইঅক্সাইড গ্রহণ করে বৃক্ষ আমাদের বাঁচিয়ে রাখে। কিন্তু ব্যাপকহারে বৃক্ষ নিধনের ফলে মানবজীবন আজ চরম বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয়ে পড়েছে। এছাড়া প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষের ভূমিকা অপরিসীম। এজন্য অধিকহারে বৃক্ষরােপণ এবং এর প্রয়ােজনীয়তা ঢালকে সাধারণ জনগণকে সচেতন করে তুলতে হবে।

ভৌগােলিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করলে দেখা যায়, প্রাকৃতিকভাবে যদি সুস্থ থাকতে হয়, তবে সে দেশের এক-তৃতীয়াংশ বনভূমি থাকা প্রয়োজন। কিন্তু এক্ষেত্রে আমাদের দেশে রয়েছে মাত্র শতকরা যােলাে ভাগ বনভূমি। এত তাড় পত্রিমাণ বনভূমি থাকার কারণে আমাদের দেশ প্রাকৃতিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে এবং বন্যা, খরাসহ নানা প্রাকৃতিক বিপর্যয় দেখা দেয়। বৃক্ষের স্বল্পতার জন্য প্রকৃতির লীলাভূমি বাংলাদেশের ঋতুবৈচিত্রের স্বাভাবিক বিন্যাস মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। বৃষ্টির পরিবর্তে ঘন ঘন ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে দেশ ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে। সমুদ্র উপকূল এবং সেখানকার জীবনপ্রবাহ প্রতিনিয়তই আতঙ্কিত থাকছে। এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে হলে অধিকহারে বৃক্ষরােপণ করতে হবে।

দৈনন্দিন জীবনে বৃক্ষকে অস্বীকার করার উপায় নেই। ঘরবাড়ি তৈরি, আসবাবপত্র তৈরি, জ্বালানি চাহিদা পূরণেও কাঠ তথা বৃক্ষের বিকল্প নেই। কিন্তু প্রতিবছর বিপুলসংখ্যক বৃক্ষ নিধন করা হচ্ছে। এছাড়া বিপুল পরিমাণ কাঠ চোরাই পথে দেশের বাইরে পাচার হয়ে যাচ্ছে। ফলে দেশের উত্তরাঞ্চল মরুভূমিতে পরিণত হয়ে যাচ্ছে।

দেশের প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ফলে শুধু আমাদের দেশের পরিবেশবিদ নয়, বিশ্বব্যাপী পরিবেশবিদদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। প্রাকৃতিক ভারসাম্য টিকিয়ে রাখতে হলে অধিক হারে বৃক্ষরােপণের বিকল্প নেই। এই বিপর্যয় থেকে রক্ষার জন্য বিশ্বব্যাপী একই স্লোগান- ‘গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান’। আমাদের দেশে প্রতিবছর অনাবৃষ্টি এবং বন্যা দেখা দিচ্ছে। এর অন্যতম কারণ হিসেবে পরিবেশবিদগণ বৃক্ষশূন্যতাকে চিহ্নিত করেছেন। এই পরিস্থিতির উত্তরণে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মধ্যে বৃক্ষরােপণ অভিযান গড়ে তুলতে হবে।

অতএব, বৃক্ষরােপণের প্রয়ােজনীয়তা সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি করে দেশকে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার মাধ্যমে সবুজ সৌন্দর্যমন্ডিত পৃথিবী গড়ে তােলা প্রয়ােজন।

বিনীত

লিজন

আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম।

About bdtoppost

Check Also

সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে তোমার মতামত জানিয়ে পত্রিকায় প্রকাশপোযোগী একখানা পত্র রচনা কর

সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে তোমার মতামত জানিয়ে পত্রিকায় প্রকাশপোযোগী একখানা পত্র রচনা কর

Rate this post সড়ক দুর্ঘটনা রােধকল্পে তােমার মতামত জানিয়ে পত্রিকায় প্রকাশােপযােগী একখানা পত্র রচনা কর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.