স্কুলের বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান সম্পর্কে প্রতিবেদন

Rate this post

স্কুলের বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযােগিতা অনুষ্ঠান সম্পর্কে প্রতিবেদন

মনে কর, তােমার স্কুলে বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযােগিতা অনুষ্ঠান করা হয়েছে। এ অনুষ্ঠান সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন রচনা কর।

১৬ই এপ্রিল, ২০২২

বরাবর

প্রধান শিক্ষক

শ্যামপুর উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়

লক্ষ্মীপুর।

বিষয় : স্কুলের বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযােগিতা অনুষ্ঠান সম্পর্কে প্রতিবেদন।

জনাব,

শ্যামপুর উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযােগিতা সম্পর্কে প্রতিবেদন তৈরির জন্য আদেশ পেয়ে নিচের প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করছি।

শ্যামপুর উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযােগিতা অনুষ্ঠিত

গত ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ বিদ্যালয়ে বার্ষিক বিতর্ক প্রতিযােগিতা শুরু হয়। এর চূড়ান্ত প্রতিযােগিতা গত ১৪ই ফেব্রুয়ারি বিদ্যালয় মিলনায়তনে সম্পন্ন হয়। এবারের প্রতিযােগিতার বিষয় ছিল শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস রােধে শিক্ষকের ভূমিকাই সবচেয়ে বেশি কার্যকর। এ প্রস্তাবের ওপর প্রথমে বিভিন্ন শ্রেণির বিভিন্ন শাখায় বিতর্কের কর্মসূচি নেয়া হয়। একই শ্রেণির দু’দলের মধ্যে একই বিষয়ে বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয় এবং দু’দলের মধ্যে বিজয়ী দলকে পরবর্তী পর্যায়ে অন্য শ্রেণির বিজয়ী দলের সাথে প্রতিযােগিতা করতে হয়। এভাবে দুটি দল চূড়ান্ত প্রতিযােগিতায় অবতীর্ণ হয়। এই দুটি দল হলাে অষ্টম শ্রেণি ‘ক’ এবং নবম শ্রেণি ‘খ’ শাখা।প্রতিযােগিতায় প্রস্তাবের পক্ষে অবস্থান নিয়ে নবম শ্রেণির ‘খ’ শাখা চূড়ান্ত বিজয়ী হিসেবে ঘােষণা পায়।প্রত্যেক শ্রেণি থেকেই অনেক ছাত্রী প্রতিযােগিতায় অংশগ্রহণ করে। চূড়ান্তভাবে এক দলের তিন জন পুরস্কৃত হলেও অন্যান্য প্রতিযােগী যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে। এ দক্ষতার জন্য বিপক্ষও পরাজিত দলের প্রথম বক্তা শ্রেষ্ঠ বক্তা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। প্রতিযােগীদের যথার্থ যুক্তি ও চমৎকার উপস্থাপনা সকলের হৃদয় আন্দোলিত করেছে। তাদের এ যুক্তি, তথ্য ও বাগিতার যথাযথ প্রয়ােগ থেকে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনেক জ্ঞান অর্জন করতে পেরেছে। প্রতিযােগিতা অনুষ্ঠানে ব্যবস্থাপনা ছিল সুশৃঙল। পরিবেশ ছিল মনােরম ও আনন্দঘন। এ অনুষ্ঠানে স্কুলের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উপস্থিত থেকে প্রতিযােগীদের উৎসাহিত করেছে এবং নিজেরাও উপভােগ করেছে।

স্কুলজীবনে বিতর্ক প্রতিযোগিতা ছাত্রছাত্রীদের জীবনপথে যুক্তিতর্ক ও বিচারবিশ্লেষণে অগ্রণী করে তােলে। তাই এর নিয়মিত চর্চা হওয়া প্রয়ােজন।

প্রতিবেদকের নাম ও ঠিকানা : সাবরিনা মুস্তারী, শ্যামপুর, লক্ষ্মীপুর।

প্রতিবেদনের শিরােনাম : শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস রােধে শিক্ষকের ভূমিকাই সবচেয়ে বেশি কার্যকর।

প্রতিবেদন তৈরির সময় : সকাল ১০টা

তারিখ । ১৬ই এপ্রিল, ২০১৫।

About bdtoppost

Check Also

সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে তোমার মতামত জানিয়ে পত্রিকায় প্রকাশপোযোগী একখানা পত্র রচনা কর

সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে তোমার মতামত জানিয়ে পত্রিকায় প্রকাশপোযোগী একখানা পত্র রচনা কর

Rate this post সড়ক দুর্ঘটনা রােধকল্পে তােমার মতামত জানিয়ে পত্রিকায় প্রকাশােপযােগী একখানা পত্র রচনা কর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.