বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন

বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন

প্রায় অধিকাংশ বিদ্যালয়গুলোতে বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন করার মতো অনেক শিক্ষার্থী থেকে থাকে। আর্থিকভাবে বেশি অস্বচ্চল থাকায় তাদেরকে প্রধান শিক্ষকের নিকট বাধ্য হয়ে আবেদন করতে হয়। এছাড়াও স্কুল পরীক্ষা সহ ক্লাস পরীক্ষাগুলোতেও উক্ত আবেদনপত্র এসে থাকে। যে বিধায় শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন কিভাবে লিখতে হয়, সে ব্যাপারে জানা জরুরি। ( আরো বিস্তারিত জানুন বেতন মওকুফের জন্য প্রধান শিক্ষকের নিকট আবেদন ও জরিমানা মওকুফের জন্য আবেদন সম্পর্কে )

আমাদের শিক্ষার্থীদের মাঝে বেশ কিছু মেধাবী শিক্ষার্থী থাকে, যারা পড়ালেখায় বেশ ভালো কিন্তু পারিবারিক আর্থিক সংকটের কারণে বিদ্যালয়ের বেতন দিতে হিমশিম খেতে হয় এবং কারো কারো ক্ষেত্রে বেতন দিতেই পারে না। যে বিধায় বাধ্য হয়ে সেই মেধাবী ছাত্রগুলো বিদ্যালয় ছাড়তে হয়। কিন্তু সেই সকল ছাত্র-ছাত্রী যদি তাদের বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নিকট সঠিকভাবে বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন করতো, তাহলে তাদেরকে সেই বিদ্যালয় থেকে আর বিদায় নিতে হতো না। আর সেই প্রেক্ষিতেই আজকের আমাদের এই আর্টিকেলটি। উক্ত আর্টিকেলের মাধ্যমে আমর জানতে পারবো কিভাবে বিনা বেতনে বিদ্যালয়ে পড়ার জন্য প্রধান শিক্ষকের নিকট সুন্দর ও সঠিকভাবে আবেদন করতে হয় এবং একই সাথে প্রধান শিক্ষকের নিকট যেকোনো আবেদন কিভাবে করতে হয়, সে ফরম্যাটটি সম্পর্কেও অবগত হবো। তাহলে চলুন মূল আলোচনায় যাওয়া যাক। ( অনুপস্থির জন্য আবেদন লিখ )

বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন করার নিয়ম

বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন করার নিয়ম

মনে করো তোমার বিদ্যালয়ের নাম কাদুটি উচ্চ বিদ্যালয় এবং বিদ্যালয়ে বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য প্রধান শিক্ষকের নিকট একটি আবেদনপত্র লেখো: বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন করার নিয়মটি হলো-

২৫.১১.২০২১

বরাবর

প্রধান শিক্ষক

কাদুটি উচ্চ বিদ্যালয়

কাদুটি, চান্দিনা, কুমিল্লা

বিষয়: বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদনপত্র।

জনাব,

সবিনয় নিবেদন এই যে, আমি আপনার বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের একজন নিয়মিত ও বাধ্যগত ছাত্র। বরাবর প্রতিবছরের ন্যায় এবারও আমি ক্লাস পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেছি। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় হলো আমার পরিবারের ৫ জন সদস্যকে নিয়ে আমার বাবা দীর্ঘদিন ধরে ব্যাপকভাবে আর্থিক সংকটে রয়েছে। আপনার জ্ঞাতার্থে জানানো যাইতেছে যে, আমাদের পরিবারে আমি সহ আমার ভাই-বোন রয়েছে ৪ জন এবং আমার মা-বাবা। আমাদের পরিবারের উপার্জনকারীর মধ্যে আমার বাবা একজনই। সুতরাং তাঁর একার পক্ষে পরিবারের সমস্ত ভরণপোষণ পুষিয়ে এসে আমাদের পড়ালেখার খরচ বহন করা অত্যন্ত কঠিন ব্যাপার হয়ে পড়ে। এমতোবস্থায় আমাদের তথা আমার পড়া-লেখায় বর্তমানে বিরূপ প্রভাব তৈরি হচ্ছে।

অতএব, সবিনয়ের নিকট আকুল আবেদন এই যে, আপনার বিদ্যালয়ে আমাকে বিনা বেতনে পড়া-লেখা করার সুযোগ তৈরি করে দিয়ে বাধিত করিবেন। আমাকে যদি আপনার বিদ্যালয়ে বিনা বেতনে পড়ার সুযোগ তৈরি করে দেন, তাহলে আপনার প্রতি চিরকৃতজ্ঞ থাকিব।

নিবেদক

মো: ইকরামুল হক

দশম শ্রেণি, রোলনং-০৩

উপরোক্ত আবেদন পত্রটিই হলো বিনা বেতনে প্রধান শিক্ষকের নিকট আবেদন করার ফরম্যাট। উক্ত ফরম্যাটে অথবা এখানে উল্লেখিত আবেদনপত্রটি যদি কোনো শিক্ষার্থী তাঁর স্কুল পরীক্ষায় কিংবা তার বেতন বিনামূল্য করার জন্য অফিসে জমা দেয়, তাহলে আশা করি সে উপকৃত হতে পারবে।

বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন নিয়ে শেষ কথা

বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন নিয়ে শেষ কথা

আজকের সম্পূর্ণ আর্টিকেলের মূল বিষয় ছিল বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন কিভাবে লিখতে হয় এবং একজন শিক্ষার্থী তাঁর বেতন কিভাবে প্রধান শিক্ষকের নিকট আবদনের মাধ্যমে বেতন ফ্রী করতে পারে। উপরের অংশে সে সম্পর্কে বিস্তারিত বলার পাশাপাশি একটি আবেদন পত্রের সঠিক ফরমেট তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। যদি কোনো শিক্ষার্থী পরীক্ষাতে কিভাবে আবেদনপত্র লিখতে হয়, সে সম্পর্কে না জেনে থাকে, তাহলে সে উপরোক্ত আবেদন পত্রটি লক্ষ্য করতে পারে। এছাড়াও যদি এমন কোনো শিক্ষার্থী থেকে থাকে যে, তাঁর বিদ্যালয়ের বেতন ফ্রী করতে চায়, সে ক্ষেত্রেও সে উক্ত আবেদনটি তাঁর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নিকট করতে পারে। এতে করে সে প্রধান শিক্ষকের নিকট হতে পারমিশন পাবে। আশা করি, আজকের আর্টিকেল তথা বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদনটি দ্ধারা শিক্ষার্থীরা বেশ ভালোভাবে উপকৃত হতে পারবে।

বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন সম্পর্কে আরো জানতে

About রবীন্দ্র

Check Also

স্বাধীন বাংলাদেশের পরিচিত

স্বাধীন বাংলাদেশের পরিচিত

স্বাধীন বাংলাদেশের পরিচিত সুপ্রাচীন ঐতিহ্যের অধিকারী আমাদের এ বাংলাদেশ। বাংলাদেশ নামে স্বাধীন ও সার্বভোম রাষ্ট্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published.